ছিন্নমূল মানুষের মুখে খাবার তুলে দিলেন হিরো আলম

Must Try

বিশ্বের প্রথম চলমান বিলাসবহুল মসজিদ

জাপান অলিম্পিক ২০২০ সালকে কেন্দ্র করে দেশটিতে তৈরে করা হয় ভ্রামনীয় মসজিদ, যা যখন যেখানে প্রয়োজন সেখানেই নিয়ে যাওয়া যাবে। শুধু তাই নয়, মসজিদটি...

মসজিদের সামনে কুরুচিপূর্ণ নাচ নাচলেন নায়িকা মুনমুন;সমালোচনার ঝড় যোগাযোগ মাধ্যমে

টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার পলাশতলী বাজার মসজিদের সামনে কুরুচিপূর্ণ নাচের আসর বসান চিত্রনায়িকা মুনমুন। ভিডিওটি প্রকাশ হওয়ার পর মূহুর্তেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল...

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ২২০২ জন,আবারো বেড়েছে মৃত্যুর সংখ্যা

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে আরও ২ হাজার ২০২ জনের দেহে। এসময় দেশে আরও ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে...

ইতিহাসের ৩০ জায়গায় উল্লেখ আছে আজকের এই দিন

আজ ২২, ভাদ্র ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,এবং গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ২৫০তম (অধিবর্ষে ২৫১তম) দিন। অথচ কে জানতো, আজকে এই দিনটি জায়গা করে নিবে ইতিহাসের পাতার...

আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম; সামাজিক মাধ্যম এবং মিডিয়াতে বেশ আলোচিত এবং সমালোচিত একটি নাম। প্রায়ই তাকে খবরের শিরোনামে দেখা যায় নানা বিতর্কে জড়িয়ে। তবে তিনি বেশ মানব দরদিও বটে।

বিজ্ঞাপন

এবার হিরো আলম ছিন্নমূল মানুষের মুখে ভালো খাবার তুলে দিচ্ছেন। ছিন্নমূল, অসহায় ও অনাথ মানুষেরা, যারা ঈদে ভালো খাবার পায়নি, তাদের মুখে ভালো খাবার তুলে দেওয়ার উদ্যোগ এবং ঈদের আনন্দ সবার সঙ্গে ভাগ করে নেওয়ার জন্য উদ্যোগ নিয়েছেন হিরো আলম।

এরই অংশ হিসেবে বগুড়ার বিভিন্ন এলাকার ছিন্নমূল মানুষের কাছে নিজ বাড়িতে রেঁধে খাবার নিয়ে যান।

এ নিয়ে হিরো আলম বলেন, ‘আমি আগে এত চিন্তা করতে পারতাম না। ধীরে ধীরে মানুষ যখন আমাকে হিরো আলম হিসেবে চিনতে শুরু করে, রাস্তায় আমাকে দেখলে ভিড় করে, তখনই আমার মাথায় নতুন নতুন চিন্তা কাজ করতে শুরু করে। মানুষের জন্য ভাবতে শুরু করি। ঈদে আমার মনে হয়েছে, অনেক মানুষ ভালো খাবার পায়নি। অনেক মানুষ না খেয়েও থেকেছে। আমার কিছু করার ইচ্ছা করে। কিন্তু আমার তো অনেক টাকা নাই। ’

তিনি বলেন, ‘তার পরও আমার মনে হলো- আমি এই ঈদে কিছু মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর চেষ্টা করি। ঈদের আগে সারিয়াকান্দির যমুনার ভাঙন ও বন্যাকবলিত এলাকায় গিয়েছি। ঈদের  তৃতীয় দিন বগুড়ার রেলস্টেশন এলাকায়, বিভিন্ন বস্তি, ফুটপাত, অনাথ আশ্রম এলাকায় গিয়েছি। নিজ হাতে তাদের মুখে খাবার তুলে দিয়েছি। কিছু শুকনো খাবার দিয়ে এসেছি। কোথাও আর্থিক সাহায্য করেছি। খুব সামান্য, বলার মতো কিছু না। একদিন অনেক টাকা হলে হয়তো সব অসহায়ের পাশে আরো বেশি সাহায্য নিয়ে দাঁড়াতে পারব।’

বগুড়ার এরুলিয়া ইউনিয়নের এরুলিয়া গ্রাম থেকে উঠে আসেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। আলোচনা ও সমালোচনার কেন্দ্রে পরিণত হয়ে হিরো আলম ওরফে আশরাফুল আলম ঢাকায় চলে আসেন। স্থানীয়ভাবে তিনি ডিশ আলম হিসেবেও পরিচিত। কেননা এরুলিয়ায় তাঁর কেবল নেটওয়ার্কের ব্যবসা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

প্রতিনিয়ত নতুন খবর পেতে চোখ রাখুন ফেইজবুক পেইজে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সম্পর্কিত পোস্ট