দুধের অভাবে পাঁচমাস ধরে ময়দা গোলা পানি খাচ্ছে যমজ শিশু 

খাবারের অভাবে পাঁচমাস ধরে ময়দা গোলা পানি খাচ্ছে যমজ শিশু 

আট মাসের যমজ শিশু সাফিয়া ও মারিয়া সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি। জন্মের পর তিনমাস পর্যন্ত তারা কেনা দুধ খেতে পারলেও এখন তাও পাচ্ছেন না।

সাফিয়া ও মারিয়ার বাড়ি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ফিংড়ি ইউপির ফয়জুল্লাহপুর গ্রামে। বাবা আনিসুর রহমান ভ্যানচালক। মা স্বপ্না বেগম মানুষের কাছ থেকে সহযোগিতা নিয়ে সাফিয়া ও মারিয়ার মুখে খাবার তুলে দেয়ার চেষ্টা করেন। বর্তমানে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের ১৩ নম্বর বেডে রয়েছে ওই যজম শিশুরা।

মা স্বপ্না বেগম জানান, ওদের বয়স এখন আট মাস। আমার বুকের দুধ শুকিয়ে গেছে। জন্মের তিন মাস পর্যন্ত দুধ কিনে খাইয়েছি তাদের। তারপর থেকে টাকা নেই। তাই চালের গুঁড়া পানিতে মিশিয়ে খাইয়েছি কয়েক মাস। এখন ময়দা ও আটা পানিতে গুলিয়ে খেতে দেই তাদের।

রিপ্লে

মন্তব্য লিখুন!
নাম